শিরোনাম
চিকিৎসায় বিদেশমুখিতা কমাতে পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির নয়না’র প্রেমে পড়েছেন বালাম আইনের প্রতি শ্রদ্ধা দিন দিন কমছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত সৌদি পৌঁছেছেন প্রায় সাড়ে ৪১ হাজার হজযাত্রী ‘মাইকেল জ্যাকসন’ থেকে প্রিয়াঙ্কার স্বামী, কে নেই কানে কুষ্টিয়ার খোকসায় ছাত্র লীগ নেতা শিমুলের বিরুদ্ধে নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে কাজ করার অভিযোগ  বরিশালে প্রতিবন্ধী তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক রেফাউলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮ সিরাজদিখানের মালখানগরে আনারস প্রতীকের উঠান বৈঠক ‘রেমালের’ প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বাগেরহাটে চিরকাল শত্রুরা আমার আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে: পরীমনি এমপি আনারের লাশের টুকরোর সন্ধানে জোর তল্লাশি, খালে ফেলা হলো জাল ও নৌকা সিরাজদিখানে মধ্যপাড়া একতা যুব সংঘ ও সমিতি উদ্যোগে কিডনি রোগীকে নগদ অর্থ অনুদান সিরাজদিখানে টিয়া পাখি প্রতীকের গনসংযোগ ও পথসভা অনুষ্ঠিত হত্যার পর ৮০ টুকরো করা হয় এমপি আনারের দেহ কুষ্টিয়া ডিবি পুলিশের অভিযানে ১০০পিচ ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার-০১ দেশে ফিরে থলের বিড়াল বের করে দেব: নিপুণ সেভ দ্যা ফিউচার ফাউন্ডেশন প্রস্তুতি সভা ও আলোচনা অনুষ্ঠিত ভারতে নিখোঁজ এমপি আনারের মরদেহ উদ্ধার হরিণাকুন্ডু ও শৈলকুপায় যারা বিজয়ী হলেন 
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৯:৪৯ অপরাহ্ন

তীব্র তাপপ্রবাহের মধ্যে ঝিনাইদহের শতশত নলকূপে উঠছে না পানি !

সাকিব রহমান
আপলোড সময় : রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪
তীব্র তাপপ্রবাহের মধ্যে ঝিনাইদহের শতশত নলকূপে উঠছে না পানি

তীব্র তাপপ্রবাহে পুড়ছে ঝিনাইদহ। মাঠে ফসল, প্রানীকূল হাঁসফাঁস করছে। সেইসাথে যুক্ত হয়েছে পানির সংকট। হস্তচালিত নলকূপ এবং স্যালো-বরিঙে উঠছে না পানি। ফলে গৃহস্থালি থেকে শুরু করে মাঠে কৃষক, উভয়ই পরেছে চরম সংকটে।

সরেজমিন দেখা যায়, ঝিনাইদহের বাজার গোপালপুর মাঠে স্যালোইঞ্জিন চালিয়ে ধানের সেচ কাজ করেন ইবাদত হোসেন। দুই সপ্তাহ আগেও তাঁর সেচ পাম্পে পর্যাপ্ত পানি উঠত। এখন ৪ থেকে ৫ ফুট মাটির গভীরে মেশিন বসিয়েও পানি উঠছে না। ভারি বৃষ্টি না হলে ইবাদতের মতো ঝিনাইদহের হাজারও কৃষক জমিতে সেচ নিয়ে বিপাকে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আবার হস্তচালিত টিউবওয়েলগুলোতেও একইভাবে উঠছে না পানি। বেশ কয়েক বছর ধরেই জেলার প্রায় ৫০ হাজার টিউবওয়েলে কম পানি উঠছে। ভূক্তভোগীরা বলছে, ইরি ধানের সেচ কাজে এবং পুকুর খনন করে মাছ চাষের জন্যে মাত্রাতিরিক্ত ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহার করায় পানির স্তর নেমে যাচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, জেলার বেশির ভাগ বিল-ঝিল, জলাশয় ও পুকুর-নদীর পানি শুকিয়ে গেছে। বিশেষ করে জেলার ওপর দিয়ে প্রবাহিত নদ-নদীর প্রায় ৮০ শতাংশ পানি শুকিয়ে গেছে। এসব নদীর তলদেশে কৃষকেরা এখন ধানচাষ করছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলার ছয় উপজেলায় প্রায় অর্ধলক্ষাধিক নলকূপে পানি কম উঠছে। সাধারণত ২০ থেকে ৩০ ফুট নিচে পানির স্তর পাওয়া যায়। কিন্তু এখন ৩০ থেকে ৪০ ফুট নিচেও পানির লেয়ার মিলছে না। জেলা কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন বলছে, অনুমতি ছাড়া ব্যক্তি উদ্যোগে জেলার বিভিন্ন এলাকায় আরও কয়েক হাজার গভীর ও অগভীর নলকূপ বসানো হয়েছে। এসব নলকূপ থেকে নিয়ম না মেনে পানি উত্তোলন করায় স্তর নেমে যাচ্ছে।

বাজার গোপালপরের ইলেকট্রিকশেয়ান হুমায়ুন কবির বলেন, বর্তমান প্রতিদিন ৫ থেকে ৬ জন জানাচ্ছেন তার টিউবওয়েলর মোটরে পানি উঠছে না। কিন্তু এর কোন সমাধান দিতে পারছি না। বৃষ্টি হলে সমস্যা স্বাভাবিক হবে বলেও জানান তিনি।

জনস্বাস্থ্য অধিদফতর ঝিনাইদহের নির্বাহী প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম বলেন, জেলাজুড়ে কত হাজার বেসরকারি বা ব্যক্তি উদ্যোগে নলকূপ রয়েছে, তা আমাদের পরিসংখ্যানে নেই। তবে সরকারিভাবে জেলায় ১৭ হাজার গভীর ও ১৮ হাজার অগভীর নলকূপ রয়েছে। এসব নলকূপে পানির স্বাভাবিক অবস্থা রয়েছে। প্রকৌশলীদের পরামর্শ নিয়ে নলকূপ স্থাপন করলে শুষ্ক মৌসুমে পানির সংকট কমবে।

ঝিনাইদহ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের সহকারী প্রকৌশলী (ক্ষুদ্রসেচ) মো. জাহিদ হাসান বলেন, সময়টা এখন শুষ্ক এবং উষ্ণকাল। এসময় নদ-নদীর পানি কমে আসে। যে কারণে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর কিছুটা নেমে যায়। তাই এসময় পানি ব্যবহারে সচেতন হতে হবে। বিশেষ করে সংশ্লিষ্ট দফতরের নিয়ম মেনে পাম্প স্থাপন করলে পানির সংকট কমবে।


এই বিভাগের আরও খবর