শিরোনাম
কালীগঞ্জ মাহবুবুজ্জামান আহমেদ অনুসারীদের আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত সিরাজদীখানে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় আওয়ামীলীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত সোনালী ব্যাংক থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো মতিউর রহমানকে সাংবাদিক রিজুর ওপর হামলার প্রতিবাদে খোকসায় বিক্ষোভ ও মানববন্ধন সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় অটোভ্যানের সঙ্গে হাইজের সংঘর্ষে ভ্যানচালক নিহত সিরাজদীখানে বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আহত ৩ ফেনীতে বড় ভাইয়ের স্ত্রীর সাথে প’র’কীয়ার সন্দেহে হাতে ছোট ভাই খু’ন শত্রু বেড়েছে শাকিব খানের, নিরাপত্তা চায় ভক্তরা! প্রথম স্ত্রীর চাপে পড়ে মিডিয়ার সামনে নাটক সাজান সেই ইফাত মাকে নিয়ে দেশ ছেড়েছেন হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি, রাতে হাসপাতালে ভর্তি খালেদা জিয়া সিরাজদিখানে কলেজ ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ঝিনাইদহ রেড জোন ঘোষণা রাসেলস ভাইপার সাপের কারণে এই ছাগল আমার লাইফ ধ্বংস করে দিয়েছে বউয়ের মামলায় উপজেলা চেয়ারম্যান কারাগারে মেয়েরা চাকরি শুরু করার পর থেকেই ডিভোর্সের সংখ্যা বেড়েছে’ ভোরে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা, যেভাবে দেখাবেন কোপার ম্যাচ  তিস্তার পানি বিপৎসীমার উপরে, বন্যার আশঙ্কা কুষ্টিয়ায় সাংবাদিক হাসিবুর রহমান রিজুর উপর সন্ত্রাসী হামলা
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ১১:৪১ অপরাহ্ন

ছাত্রলীগ ও শিক্ষার্থীদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি, উত্তেজনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপলোড সময় : সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

ছাত্রলীগের সভাপতিকে সালাম না দেওয়ায় শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের ঘটনায় বিচার চেয়ে ছয় দফা দাবিতে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা। সোমবার বেলা ১১টায় দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

এদিকে এ ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন যবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের একাংশের নেতা-কর্মীরা। সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তনের (টিএসসি) দ্বিতীয় তলায় এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগের মুখোমুখি অবস্থানে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোনো সময় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটারও শঙ্কা রয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সোহেল রানার সামনে লুঙ্গি পরে চলাফেরা ও সালাম না দেওয়ার ঘটনায় যবিপ্রবি ক্যাম্পাসের আবাসিক হলের শিক্ষার্থী মানজুরুল হাসানকে নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনের পর ওই শিক্ষার্থী যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে যবিপ্রবির শহীদ মসিয়ূর রহমান হলের ৩০৮ নম্বর কক্ষে এ নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী যশোর কোতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) ও হলের প্রভোস্টের কাছে পৃথক দুটি লিখিত অভিযোগ করেন। মানজুরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। যদিও ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা নির্যাতনের ঘটনা অস্বীকার করেছেন।

এ ঘটনার দুই দিন পর শিক্ষার্থী মানজুরুলের ওপর হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে সোমবার ক্যাম্পাসে মানববন্ধন করা হয়। দুপুরের দিকে উপাচার্য আনোয়ার হোসেন বাইরে থেকে তাঁর কার্যালয়ে প্রবেশ করতে গেলে শিক্ষার্থীরা ঘেরাও করে এ ঘটনার দ্রুত বিচারের দাবি জানান। উপাচার্যের আশ্বাসে আন্দোলনকারীরা পথ ছেড়ে দেন।

এ সময় ৬ দফা দাবিসংবলিত একটি স্মারকলিপি উপাচার্যের কাছে দেওয়া হয়। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে মানজুরুল হাসানের ওপর হামলাকারীদের দ্রুত বিচার সম্পন্ন করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনা; আগামী তিন দিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী ও অছাত্রদের হল থেকে বের করা; ৬ ফেব্রুয়ারি ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের ছাত্রীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যকারীদের বিচারের আওতায় আনা; হলগুলো মাদকমুক্ত রেখে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রতিটি ফ্লোরের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন; শিক্ষার্থী নির্যাতনের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে আইনি সহযোগিতা ও মামলার সব ব্যয়ভার বহন করা।

ছাত্রলীগের সংবাদ সম্মেলন

সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর ফয়সাল বলেন, ‘সম্প্রতি যবিপ্রবি ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের মো. মানজুরুল হাসান নামের এক শিক্ষার্থীর অভিযোগের বিষয়ে আপনারা অবগত আছেন। ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সোহেল রানাসহ যবিপ্রবি ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা-কর্মীকে জড়িয়ে শহীদ মসিয়ূর রহমান হলের প্রভোস্ট ও থানায় জিডিতে যে অভিযোগ করা হয়েছে, এর সঙ্গে সেদিনের প্রকৃত ঘটনার কোনো মিল নেই। মানজুরুল হাসান নামের ওই শিক্ষার্থীকে দিয়ে যবিপ্রবি ছাত্রলীগের সভাপতিসহ নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে সভাপতি সোহেল রানা তাঁকে চেনেন না। আর শুক্রবার রাতে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে আমার ও সভাপতি কারও দেখাও হয়নি। এখানে সালাম দেওয়া না দেওয়ার কোনো সম্পর্ক নেই। আর সে লুঙ্গি পরে থাকবে নাকি প্যান্ট পরে থাকবে, সেটাও তার একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়।’

তানভীর ফয়সাল আরও বলেন, ‘আমি প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী রকির সঙ্গে মানজুরুল হাসানের পূর্ব কোনো বিষয় নিয়ে মতানৈক্য থাকতে পারে। শুক্রবার রাতে সে বিষয়ে তাদের মধ্যে তর্কাতর্কি হয়। কিন্তু বিষয়টিকে পুঁজি করে একটি পক্ষ সুবিধা নিতে ছাত্রলীগের সভাপতি ও কয়েকজন নেতা-কর্মীর নামে মিথ্যা অভিযোগ দেওয়ানো চেষ্টা করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা বলেন, ‘ছাত্রলীগের কিছু বিপথগামী নেতা-কর্মী ও অনুপ্রবেশকারী ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের জন্য ও বিভিন্ন অপকর্মের মাধ্যমে ছাত্রলীগের নাম খারাপ করছে। আমাকে জড়িয়ে বদনাম দেওয়া হচ্ছে। এর আগেও এমন বদনাম করার চেষ্টা করা হয়েছে। যে ছেলে আমার নামে থানায় জিডি করেছে, তাঁকে আমি চিনিও না।’


এই বিভাগের আরও খবর