শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয় কোটা সংস্কার আন্দোলনে সমর্থন জানালেন জি এম কাদের পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয় রংপুরে আন্দোলনকারীদের ওপর টিয়ারগ্যাস, রাবার বুলেট নিক্ষেপ, আহত ৩০ তালতলীতে ৩২ লিটার চোলাই মদসহ আটক ১ বিশ্ব গণমাধ্যমে কোটা সংস্কার আন্দোলন ইমরানের দল পিটিআইকে নিষিদ্ধ করছে পাকিস্তান সরকার অ্যান্টিভেনম প্রয়োগের পরও ২০% রোগীর মৃত্যু দি মারিয়া, নিজের চোট আর শিরোপা জয়ের রোমাঞ্চ নিয়ে মেসির আবেগঘন পোস্ট ওমানে মসজিদের কাছে গোলাগুলি, নিহত ৪ আমি মারা যেতে পারতাম: ট্রাম্প কানে ব্যান্ডেজ নিয়ে সম্মেলনে ট্রাম্প, পেলেন আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন আমি রাজাকার’ স্লোগানধারীদের শেষ দেখিয়ে ছাড়বে ছাত্রলীগ: সাদ্দাম হোসেন নেপালে দুই বাসের ৫৭ যাত্রী এখনো নিখোঁজ, নদীর পাড়ে অপেক্ষায় স্বজনরা ৪৬ বছর পর খুলল রত্ন ভাণ্ডারের দরজা, কী আছে এতে? ৪৬ বছর পর খুলল রত্ন ভাণ্ডারের দরজা, কী আছে এতে? ছেলের বিদেশযাত্রায় ১০ দিনের জন্য মুক্তি পেলেন খুনের আসামি বাবা স্বামী কালো বলে সন্তানকে ফেলে বাপের বাড়িতে স্ত্রী! পিতৃত্ব অস্বীকার প্রবাসী স্বামীর, গলা কেটে যমজ সন্তানকে খুন
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৭:২০ অপরাহ্ন

চীন-বাংলাদেশের আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা জোরদারে শেখ হাসিনার আসন্ন সফর : রাষ্ট্রদূত

নিজস্ব প্রতিবেদন
আপলোড সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০২৪
চীন-বাংলাদেশের আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা জোরদারে শেখ হাসিনার আসন্ন সফর : রাষ্ট্রদূত
চীন-বাংলাদেশের আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা জোরদারে শেখ হাসিনার আসন্ন সফর : রাষ্ট্রদূত

ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন চীন সফরকে দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক আস্থা আরো গভীর করা, উন্নয়ন কৌশলের সমন্বয় জোরদার করা, ঐতিহ্যবাহী বন্ধুত্ব সংহত করা এবং চীনের জাতীয় পুনরুজ্জীবনের স্বপ্ন ও বাংলাদেশের রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে একসাথে কাজ করার সুযোগ হিসেবে দেখছে চীন।

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের সম্পর্কে দৃঢ় প্রাণশক্তি, গতিশীলতা এবং উন্নয়নের সম্ভাবনা রয়েছে। এ বিষয়ে দুই দেশের জনগণেরই ব্যাপক সমর্থন রয়েছে এবং শক্তিশালী ও দৃঢ় উন্নয়নের গতি বজায় থাকবে বলে আশা রয়েছে।’

 

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত ডিক্যাব টকে রাষ্ট্রদূত এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, অবকাঠামো, ডিজিটাল ইকোনমি, ক্লিন এনার্জি, কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা, সংস্কৃতি এবং জনগণের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে বাংলাদেশের সাথে কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছে |

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন সফরের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে সমন্বয় ও সহযোগিতা আরো বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেন রাষ্ট্রদূত।

এছাড়াও এ সফর যৌথভাবে উন্নয়নশীল দেশগুলোর বৈধ অধিকার ও স্বার্থ এবং আন্তর্জাতিক স্বচ্ছতা ও ন্যায়বিচার সমুন্নত রাখবে বলে মনে করেন তিনি।

রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, ব্রিকসের অংশীদার দেশ হতে বাংলাদেশের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করে চীন। বাংলাদেশ শিগগিরই ব্রিকসের সদস্য হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

 

 

রাষ্ট্রদূত বলেন, ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থীকে আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশের মানবিক চেতনার ভূয়সী প্রশংসা করে চীন। চীন যুদ্ধবিরতি ও সংলাপের জন্য মিয়ানমার সঙ্ঘাতে জড়িত সবপক্ষকে সক্রিয়ভাবে চাপ দিচ্ছে। এভাবে দেশটি শরণার্থীদের দ্রুত প্রত্যাবাসনের পথ প্রশস্ত করছে বলে জানান রাষ্ট্রদূত।

ইয়াও বলেন, ‘বহুপাক্ষিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে চীন প্রস্তুত রয়েছে। পাশাপাশি যৌথভাবে উন্নয়নশীল দেশগুলোর বৈধ অধিকার ও স্বার্থ রক্ষা এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক শান্তি ও স্থিতিশীলতার উন্নয়নে কাজ করতে আগ্রহী চীন।’

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ ও চীন একই ধরনের মূল্যবোধ, জাতীয় স্বপ্ন ও উন্নয়ন পথের অংশীদার।

 

 

রাষ্ট্রদূত বলেন, চীন বাংলাদেশের সাথে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের পাঁচটি মূলনীতি এগিয়ে নিতে, পারস্পরিক আস্থা সংহত করতে, চীন-বাংলাদেশ সম্পর্ককে পারস্পরিক শ্রদ্ধার মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে লাভজনক সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত।

প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন সফরের মাধ্যমে উভয়পক্ষ বাস্তবসম্মত সহযোগিতায় নতুন সাফল্য অর্জন করবে, যা দুই দেশের জনগণের জন্য অধিকতর সুবিধা বয়ে আনবে বলে জানান তিনি।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘এটা প্রমাণিত যে চীন বাংলাদেশের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য অংশীদার এবং সবচেয়ে বিশ্বস্ত বন্ধু।’

বাংলাদেশের আধুনিকায়নের অগ্রযাত্রা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ (বিআরআই) বাংলাদেশের রূপকল্প ২০৪১ এবং স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ গড়তে অনেকটা ভূমিকা রাখবে।

 

 

ইয়াও ওয়েন আরো বলেন, ‘চীন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য অংশীদার এবং দ্বিতীয় বৃহত্তম বিদেশী বিনিয়োগের উৎস। বাংলাদেশের সাথে চীনের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সহযোগিতা কোনো রাজনৈতিক বন্ধন বা বিশেষ সুবিধার দাবিতে গড়ে উঠেনি। বাংলাদেশ বিআরআইতে যোগ দেয়ার পর গত আট বছরে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জিত হয়েছে।’

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ডিক্যাব সভাপতি নুরুল ইসলাম হাসিব ও সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান অপু।

সূত্র : ইউএনবি


এই বিভাগের আরও খবর