শিরোনাম
আন্দোলনকারীদের দেশে থাকার অধিকার নেই: জাফর ইকবাল স্ত্রীর দাবি নিয়ে স্বামীর বাড়িতে অনশন আগামীকাল সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা শাবি ছাত্রলীগের কক্ষ থেকে পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বাড়ছে ২৭ শতাংশ, আগস্ট থেকে কার্যকর রাবি প্রশাসনকে সময় বেধে দিলেন আন্দোলনকারীরা রংপুর পার্ক মোড়ের নাম ‌‘শহীদ আবু সাঈদ চত্বর’ দিলেন শিক্ষার্থীরা কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীদের আন্দোলন, ৩ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু নওগাঁয় কোঠা সংস্কার মিছিল ছাত্রলীগের বাঁধায় পন্ড, উভয় পক্ষের বাহাস জামালপুরে ট্রেন ও সড়ক অবরোধ কফিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার শপথ শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কার : সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল বিশ্ব গণমাধ্যমে কোটা আন্দোলনে নিহতের খবর পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয় কোটা সংস্কার আন্দোলনে সমর্থন জানালেন জি এম কাদের পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয়
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন

আমের পর কাঁঠল ও ড্রাগন ফলে সরগরম বেলতলা বাজার

মোঃ সোহাগ হোসেন, বেনাপোল প্রতিনিধি।
আপলোড সময় : সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের সর্ববৃহৎ পাইকারি আমের মুকাম বেলতলা আম বাজার। এই বাজার টি যশোর জেলার সীমানার শেষ ও সাতক্ষীরা জেলার প্রবেশদ্বার বেলতলা নামক স্থানে অবস্থিত। প্রতি বছর পহেলা বৈশাখ থেকে আষাঢ় মাসের শেষ পর্যন্ত চলে এ বাজারে আম বেচাকেনা। এ বছর আমের পাশাপাশি কাঠাল ও ড্রাগন ফল বেচাকেনায় সরগরম হয়ে উঠেছে বাজার টি।

সোমবার (২৪ জুন) সকালে বেলতলা বাজার সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়, বেশকিছু আড়ৎতে আমের পাশাপাশি কাঁঠাল ও ড্রাগন ফল পাইকারি বিক্রি হচ্ছে। কাঁঠাল বিক্রি হচ্ছে শ’ হিসাবে, আর ড্রাগন ফল বিক্রি হচ্ছে কেজিতে। বড় সাইজের কাঁঠাল গুলো ৭ থেকে ৯ হাজার টাকা পর্যন্ত শ’ হিসাবে বিক্রি হচ্ছে। অর্থাৎ প্রতি পিস কাঁঠাল ৭০ থেকে ৯০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ড্রাগন ফল প্রকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি দরে।

কাঁঠাল চাষী আসমান ও কাদের আলী বলেন, বিভিন্ন গ্রাম থেকে কাঁঠাল কিনে এনে বেলতলা বাজারে আড়ৎতে বিক্রি করি। এতে আমারা লাভবান হচ্ছি।

ড্রাগন ফল চাষী মেহেদী হাসান ও রফিকুল ইসলাম বলেন, এ বছর ফলন বেশি, কিন্তু বৃষ্টির ভাগ কম তাই গতবছের চেয়ে ফলের সাইজ একটু ছোট। তবে এ বছর দাম কিছুটা কম এজন্য অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন তারা। আর এর জন্য চাষীরা দায়ী করছেন কিছু অসাধু ইউটিউবারদেরকে।

আড়ৎদার আবুল কালাম আজাদ, আমিরুল ইসলাম, ও তাজউদ্দিন সরদার বলেন, আমের মৌসুম প্রায় শেষ, এখন কাঁঠাল ও ড্রাগন ফল আড়ৎতে উঠতে শুরু করেছে। দিনদিন আমের পাশাপাশি বিভিন্ন জাতের ফল বাজারে আমদানি এবং রপ্তানি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বেলতলা ফল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি লুকমান হেসেন বলেন, এ বছর আমের পাশাপাশি মৌসুমী ফল কাঁঠল ও ড্রাগন ফল বেচাকেনা শুরু হয়েছে। আগামীতে আরো আমদানি ও রপ্তানি বৃদ্ধি পাবে। এছাড়াও বরুই মৌসুমে পর্যাপ্ত পরিমাণ বরুই (কুল) এই বাজার থেকে বেচাকেনা হয়। সব মিলিয়ে বেলতলা ফল বাজারটি দেশে এবং বিদেশে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ পেয়েছে। তিনি আরো বলেন, কমিটির পক্ষ থেকে বাহির থেকে আসা বেপারী ও চাষীরা যাতে নির্ভিগ্নে বেচাকেনা করতে পারে সে জন্য সকল ধরনের ব্যবস্থাও রয়েছে।


এই বিভাগের আরও খবর