শিরোনাম
আন্দোলনকারীদের দেশে থাকার অধিকার নেই: জাফর ইকবাল স্ত্রীর দাবি নিয়ে স্বামীর বাড়িতে অনশন আগামীকাল সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা শাবি ছাত্রলীগের কক্ষ থেকে পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বাড়ছে ২৭ শতাংশ, আগস্ট থেকে কার্যকর রাবি প্রশাসনকে সময় বেধে দিলেন আন্দোলনকারীরা রংপুর পার্ক মোড়ের নাম ‌‘শহীদ আবু সাঈদ চত্বর’ দিলেন শিক্ষার্থীরা কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীদের আন্দোলন, ৩ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু নওগাঁয় কোঠা সংস্কার মিছিল ছাত্রলীগের বাঁধায় পন্ড, উভয় পক্ষের বাহাস জামালপুরে ট্রেন ও সড়ক অবরোধ কফিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার শপথ শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কার : সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল বিশ্ব গণমাধ্যমে কোটা আন্দোলনে নিহতের খবর পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয় কোটা সংস্কার আন্দোলনে সমর্থন জানালেন জি এম কাদের পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয়
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

পাবনায় ঘোড়ার মাংস খেয়ে ঘরছাড়া গ্রামবাসী

 নাঈম হোসাইন,পাবনা জেলা প্রতিনিধি:
আপলোড সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০২৪

পিকনিক করবেন বলে শখ করে ঘোড়া কিনে আনান মহিউদ্দিন চৌধুরী। লোকজন দিয়ে জবাই করে রান্নাও করা হয়। আয়োজন করে সেই মাংস খাওয়ার ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে বাধে বিপত্তি। সমালোচনার ঝড় উঠে এলাকায়।

এরই প্রতিবাদে মঙ্গলবার সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মানববন্ধনও করা হয়। অবস্থা বেগতিক দেখে যারা মাংস খেয়েছিলেন তারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে এখন এলাকা ছাড়া। ঘটনাটি ঘটেছে পাবনার বেড়া উপজেলার হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়নের চড় পেঁচাকোলা গ্রামে।

গত ২৯ জুন বেড়া শাহা পাড়ার মহিউদ্দিন চৌধুরী স্থানীয় মানিক হোসেন, আব্দুস সোবহান, হিরো আলমসহ কয়েকজনকে ঘোড়া কিনে আনতে বলেন। তারা এক হাজার টাকা দিয়ে একটি ঘোড়া কিনে হাটুরিয়া-নাকালিয়া ইউনিয়নের চড় পেঁচাকোলা নদীর পাড়ে উল্লাস করে সেটি জবাই করেন। জবাই ও রান্নার ভিডিও ধারণ করে সবাই মিলে সেই মাংস খান এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন। এরপরই শুরু হয় সমালোচনা। মুসল্লিদের মধ্যে দেখা দেয় মিশ্র প্রতিক্রিয়া। মঙ্গলবার পেঁচাকোলা চার মাথা মোড়ে এলাকার মুসল্লি ও স্থানীয়দের অনেকেই এর প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন।

হাটুরিয়া চারমাথা বাজারের ব্যবসায়ী আলামিন বলেন, যার নির্দেশে ঘোড়ার মাংস রান্না হয়েছে এবং যারা খেয়েছেন তাদের সবার শাস্তি চাই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মডেল মসজিদের ইমাম মোস্তফা কামাল ও বেড়া শাহ্ পাড়া মাসজিদের ইমাম শাহারিয়ার বিন জাকারিয়া বলেন, হাদিস শরীফে ঘোড়ার মাংস খাওয়ার পক্ষে–বিপক্ষের দুই ধরনেরই বক্তব্য আছে। তাই এর মাংস খাওয়া থেকে বিরত থাকলেই ভালো।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মিজানুর রহমান জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চড় পেঁচাকোলা এলাকায় ঘোড়া জবাই করে মাংস খাওয়ার ভিডিও দেখেছি। এতে মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। আমি ধর্মীয় বিষয়ে কিছু বলতে চাচ্ছি না। তবে আমাদের দেশে ঘোড়া সংখ্যা কম। এভাবে এর মাংস খাওয়া শুরু হলে এ প্রাণী বিলুপ্তির পথে চলে যাবে। তাই আমি ঘোড়ার মাংস খেতে নিরুৎসাহিত করব।


এই বিভাগের আরও খবর