শিরোনাম
আন্দোলনকারীদের দেশে থাকার অধিকার নেই: জাফর ইকবাল স্ত্রীর দাবি নিয়ে স্বামীর বাড়িতে অনশন আগামীকাল সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা শাবি ছাত্রলীগের কক্ষ থেকে পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বাড়ছে ২৭ শতাংশ, আগস্ট থেকে কার্যকর রাবি প্রশাসনকে সময় বেধে দিলেন আন্দোলনকারীরা রংপুর পার্ক মোড়ের নাম ‌‘শহীদ আবু সাঈদ চত্বর’ দিলেন শিক্ষার্থীরা কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীদের আন্দোলন, ৩ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু নওগাঁয় কোঠা সংস্কার মিছিল ছাত্রলীগের বাঁধায় পন্ড, উভয় পক্ষের বাহাস জামালপুরে ট্রেন ও সড়ক অবরোধ কফিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার শপথ শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কার : সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল বিশ্ব গণমাধ্যমে কোটা আন্দোলনে নিহতের খবর পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয় কোটা সংস্কার আন্দোলনে সমর্থন জানালেন জি এম কাদের পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয়
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন

নওগাঁয় বাড়ির দেওয়াল ভেঙে ফেলার অভিযোগ

অন্তর আহমেদ, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি:
আপলোড সময় : বুধবার, ৩ জুলাই, ২০২৪

নওগাঁ সদর উপজেলার হাঁপানিয়া ইউনিয়নের লক্ষনপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের মোছাঃ আরজুমান বেগমের মা এর কবলাকৃত সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ একই এলাকার মোঃ হারুন অর রশিদের সাথে বিরোধ।

বিরোধের জেরে গত রবিবার ৩০ জুন বিকাল ৩ টার সময় আরজুমান বেগম বাড়িতে উপস্থিত না থাকার সুযোগে বাড়ির দেওয়াল ভেঙে ফেলে হারুন অর রশিদ ও তার ছেলে আতিক সহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন।

এই বিষয়য়ে আরজুমান বেগম বলেন, আমার মা এর কবলা সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলছিল আমার মা এর উক্ত সম্পত্তি তাদের বলে দাবী করে আসতেছে। হঠাৎ করে বাড়িতে উপস্থিত না থাকার সুযোগে বাড়ির দেওয়াল ভেঙে ফেলে হারুন অর রশিদ ও তার ছেলে আতিক সহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন।
আমি সহ আমার পরিবারের লোকজন বাধা নিষেধ করলে হারুন অর রশিদ আমাদের খুন জখম সহ বিভিন্ন ধরনের হুমকী ধামকী প্রদান করে এবং সন্ধায় বাজারে গেলে পিছন থেকে হারুন অর রশিদ ও তার ছেলে আতিক এসে আমাকে মারধর করে।

হারুন অর রশিদ বলেন, আমার জমি আমার সীমানা প্রাচীর তারা রান্না ঘরের চাল তুলে তাদের দাবী করে। এই সীমানা প্রাচীর অনেক পুরাতন ফাটল ধরেছে তাদেরকে বলেছি এই সীমানা প্রাচীর থেকে টিন গুলো সরিয়ে নিতে, তারা নাই নাই। এই সীমানার প্রাচীর ভেঙে যে কোন মুহূর্তে বড় ধরনের একটা দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো।এজন্য ইউনিয়ন পরিষদ বরাবর লিখিত অভিযোগ দিলে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রাচীর ভেঙে ফেলার জন্য একাধিকবার নোটিশ দিয়েছে তারপরও তারা ভাঙ্গিনি। বৃষ্টির পানিতে প্রাচীর হেলে পড়লে ইউনিয়ন পরিষদের যোগাযোগ করে একজন মহিলা মেম্বার ও চৌকিদার পাঠায় তাদের সামনে আমি আমার ঝুঁকিপূর্ণ প্রাচীর ভেঙে ফেলি। প্রাচীর ভেঙে ফেলার পর থেকে আমাকে হুমকি ধমকি দিচ্ছে।

হাঁপানিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেওয়ান মোস্তাক আহমেদ রাজা বলেন , প্রাচীরের বিষয়ে একাধিকবার নোটিশ করা হয়েছে এবং দুই পক্ষকে বসার জন্য বলা হয়েছে। তারা না বসলে তারা নিজেরাই প্রাচীর ভেঙে ফেলেছে এর বেশি কিছু আমি জানি না।


এই বিভাগের আরও খবর