শিরোনাম
আন্দোলনকারীদের দেশে থাকার অধিকার নেই: জাফর ইকবাল স্ত্রীর দাবি নিয়ে স্বামীর বাড়িতে অনশন আগামীকাল সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা শাবি ছাত্রলীগের কক্ষ থেকে পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বাড়ছে ২৭ শতাংশ, আগস্ট থেকে কার্যকর রাবি প্রশাসনকে সময় বেধে দিলেন আন্দোলনকারীরা রংপুর পার্ক মোড়ের নাম ‌‘শহীদ আবু সাঈদ চত্বর’ দিলেন শিক্ষার্থীরা কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীদের আন্দোলন, ৩ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু নওগাঁয় কোঠা সংস্কার মিছিল ছাত্রলীগের বাঁধায় পন্ড, উভয় পক্ষের বাহাস জামালপুরে ট্রেন ও সড়ক অবরোধ কফিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার শপথ শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কার : সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমাম বাড়িতে পবিত্র আশুরার শোক মিছিল বিশ্ব গণমাধ্যমে কোটা আন্দোলনে নিহতের খবর পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয় কোটা সংস্কার আন্দোলনে সমর্থন জানালেন জি এম কাদের পাসপোর্টের রোকনের ঘরে আলাদিনের চেরাগ নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে লাগামহীন ঘুষ বাণিজ্য : রোহিঙ্গা পাসপোর্টও হয়
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

প্রেমিকের সঙ্গে মিলে ৩ সন্তানকে ডুবিয়ে মারলেন মা!

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপলোড সময় : মঙ্গলবার, ২ জুলাই, ২০২৪
প্রেমিকের সঙ্গে মিলে তিন সন্তানকে নদীতে ডুবিয়ে মারার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে। তবে মৃত্যুর অভিনয় করে বেঁচে গেছে অভিযুক্ত নারীর আরেক সন্তান। আট বছরের নাবালকের অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল শুক্রবার অভিযুক্ত প্রেমিক ও নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ভারতের উত্তরপ্রদেশের আউরাইয়া অঞ্চলের। এনডিটিভি জানিয়েছে, অভিযুক্ত নারীর নাম প্রিয়াঙ্কা। তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক আশিষের। স্বামীর মৃত্যুর পরই আশিষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান প্রিয়াঙ্কা। চার সন্তানকে নিয়ে দেবরের কাছে থাকতেন তিনি। শ্বশুর-শাশুড়ি তার সন্তানদের দেখভাল করতে অস্বীকার করেন। ফলে প্রিয়াঙ্কার প্রেমে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় সন্তানেরা। তাই পথের কাঁটা সরাতে ছক কষেন প্রিয়াঙ্কা ও আশিষ। পুলিশ জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার পরিকল্পনা মাফিক চার সন্তানকে নিয়ে সেঙ্গুর নদীর ধারে যান প্রিয়াঙ্কা। সঙ্গে ছিলেনআশিষও। এরপরই দুই শিশুকে পানিতে ডুবিয়ে মারা হয়। আরেকজনকে ছুঁড়ে ফেলা হয় মাঝ নদীতে। কিন্তু চতুর্থ জন, মানে আট বছর বয়সী শিশুটি মৃত্যুর অভিনয় করে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। তারপর রাস্তায় এক ব্যক্তিকে সব ঘটনা বলে। ওই ব্যক্তি শিশুটিকে নিয়ে পুলিশকে ঘটনাটি জানায়। অভিযোগ পেয়ে প্রিয়াঙ্কা ও আশিষকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এখন তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।
প্রেমিকের সঙ্গে মিলে ৩ সন্তানকে ডুবিয়ে মারলেন মা!

প্রেমিকের সঙ্গে মিলে তিন সন্তানকে নদীতে ডুবিয়ে মারার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে। তবে মৃত্যুর অভিনয় করে বেঁচে গেছে অভিযুক্ত নারীর আরেক সন্তান। আট বছরের নাবালকের অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল শুক্রবার অভিযুক্ত প্রেমিক ও নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ভারতের উত্তরপ্রদেশের আউরাইয়া অঞ্চলের। এনডিটিভি জানিয়েছে, অভিযুক্ত নারীর নাম প্রিয়াঙ্কা। তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক আশিষের। স্বামীর মৃত্যুর পরই আশিষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান প্রিয়াঙ্কা।

চার সন্তানকে নিয়ে দেবরের কাছে থাকতেন তিনি। শ্বশুর-শাশুড়ি তার সন্তানদের দেখভাল করতে অস্বীকার করেন। ফলে প্রিয়াঙ্কার প্রেমে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় সন্তানেরা। তাই পথের কাঁটা সরাতে ছক কষেন প্রিয়াঙ্কা ও আশিষ।

পুলিশ জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার পরিকল্পনা মাফিক চার সন্তানকে নিয়ে সেঙ্গুর নদীর ধারে যান প্রিয়াঙ্কা। সঙ্গে ছিলেনআশিষও। এরপরই দুই শিশুকে পানিতে ডুবিয়ে মারা হয়। আরেকজনকে ছুঁড়ে ফেলা হয় মাঝ নদীতে। কিন্তু চতুর্থ জন, মানে আট বছর বয়সী শিশুটি মৃত্যুর অভিনয় করে সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

তারপর রাস্তায় এক ব্যক্তিকে সব ঘটনা বলে। ওই ব্যক্তি শিশুটিকে নিয়ে পুলিশকে ঘটনাটি জানায়। অভিযোগ পেয়ে প্রিয়াঙ্কা ও আশিষকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এখন তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।


এই বিভাগের আরও খবর