সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি দক্ষিণ সাহেবপাড়া এলাকার জামিয়াতুল ইমান মাদ্রাসার শিক্ষক, ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে আটক

83
Alokito-Shitalakha

নিজস্ব প্রতিবেদক::সিদ্ধিরগঞ্জের নাসিক ২নং ওয়ার্ডের মিজমিজি দক্ষিণ সাহেবপাড়া এলাকার জামিয়াতুল ইমান মাদ্রাসার শিক্ষক মোঃ মিনহাজুর রহমান (২৭)এর বিরুদ্ধে এক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাদ্রাসার শিক্ষক মিনহাজুরকে আটক করেছে থানা পুলিশ। মিনহাজুর সিলেট জেলার জকিগঞ্জ থানার কোনাগ্রাম এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ভূক্তভোগী সাকিব আল হাসান (৯) গত আট মাস যাবত সিদ্ধিরগঞ্জে জামিয়াতুল ইমান মাদ্রাসার বর্ডিংয়ে থেকে পড়াশুনা করছে। গত ২ অক্টোবর দুপুর আনুমানিক ২ টার সময় একই মাদ্রাসার আবাসিক শিক্ষক মিনহাজুর তাকে মাদ্রাসার নিচ তলায় তার রুমে ডেকে নিয়ে আদর করার কথা বলে ওই ছাত্রকে বলাৎকার করে।

এছাড়াও ইতিপূর্বে বিভিন্ন সময়ে মিনহাজুর আদর করার কথা বলে ডেকে নিয়ে ওই ছাত্রকে একাধিকবার বলাৎকার করে বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়। বিষয়টি পরিবারের সদস্যসহ অন্য কাউকে যেনো না বলে সেজন্য বিভিন্ন রকমের ভয়ভীতি ও প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় ওই শিক্ষক। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে গত ৫ অক্টোবর বিষয়টি তার পরিবারকে জানান।

ভূক্তভোগীর পরিবার গত ৭ অক্টোবর রাতে উক্ত মাদ্রাসার প্রিন্সিপালকে অবগত করে তারা ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ওই মাদ্রাসা শিক্ষককে আটক করে থানা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ এসে অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে আটক করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক জানান, বলাৎকারের ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করেছে।

এ ঘটনায় ভূক্তভোগীর বাবা বাদি হয়ে মামলা (মামলা নং-১৩) দায়ের করেছেন।এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি সাহেবপাড়া এলাকার অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, আমাদের সন্তানরা আজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও নিরাপদ নয়। আমরা এখন যাব কোথায়?  আমরা এখন আমাদের ছেলে-মেয়েদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠাতেও ভয় পাচ্ছি।