দেশে নতুন করে ১৫৪১ জন আক্রান্ত, মৃত্যু বেড়ে ৫৪৪

123

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে নতুন করে ১ হাজার ৫৪১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮ হাজার ২৯২ জনে। পাশাপাশি গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫৪৪ জনে।

বুধবার (২৭ মে) বেলা ২টা ৩৫ মিনিটে দেশের কোভিড-১৯ সম্পর্কিত সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিন অনলাইনে প্রচারিত হয়। বুলেটিনে ভিডিও কনফারেন্সে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আইইডিসিআরসহ ৪৮টি প্রতিষ্ঠানে ৮ হাজার ১৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো দুই লাখ ৬৬ হাজার ৫৫৬টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় আরও এক হাজার ৫৪১ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ফলে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৮ হাজার ২৯২ জনে।

অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা বলেন, আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ২২ জন। তার মধ্যে ২০ জন পুরুষ ও দুইজন নারী। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১০ জন ও সিলেট বিভাগে দুইজন করে মারা গেছেন।

তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩৪৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এ নিয়ে মোট সাত হাজার ৯২৫ জন সুস্থ হলেন।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হলেও প্রথম মৃত্যুর খবর আসে ১৮ মার্চ। দিনে দিনে করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলছে। আজ দুপুর পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ হাজার ২৯২ জন মানুষ। এর আগে গত ডিসেম্বরে চীনের উহানে করোনাভাইরাসের আঘাত আসে।

এরপর এটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে। বুধবার সকাল পর্যন্ত করোনায় বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৫২ হাজার ১৫৬ জনে এবং আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬ লাখ ৮১ হাজার ৬৫৫ জন। তাদের মধ্যে বর্তমানে ২৮ লাখ ৯৮ হাজার ৯৮২ জন চিকিৎসাধীন এবং ৫৩ হাজার ১০১ জন (২ শতাংশ) আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে ২৪ লাখ ৩০ হাজার ৫১৭ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।